ডোমেইন বা ডোমেইন নেম কি

0
435
Advertisement

আজ আমরা জানব ডোমেইন নেম সম্পর্কে, ডোমেইন এর কাজ ও বিভিন্ন ধরণের ডোমেইন সম্পর্কে।

ডোমেইন নেম কি

সহজ ভাষায় বলতে গেলে ডোমেইন নেম একটা ওয়েবসাইটের নাম। facebook.com, google.com, bdclass.com এগুলো একেকটা ডোমেইন নেম বা ওয়েবসাইট। ডোমেইন নেইম একটি কম্পিউটারকে ওয়েব সার্ভারের সাথে যুক্ত করে। ডোমেইন নেম সংক্রান্ত সবকিছু ডোমেইন নেম সিস্টেম (Domain Name System) দ্বারা নিয়ন্ত্রন করা হয়

প্রতিটি ডোমেইন মূলত এক একটি আইপি বা কিছু সংখ্যা যেমন: facebook.com এর আইপি 157.240.1.35। আইপি বা সংখ্যা সমূহ সহজে সকলের মনে থাকবে না তাই আইপির পরিবর্তে ডোমেইন নেম দিয়ে আমরা তা সহজে মনে রাখতে পারি।

Advertisement

ডোমেইন নেম কি

ডোমেইন নেম সিস্টেম এর ইতিহাসঃ

টিসিপি/আইপি চালু হবার কিছু দিন পরে DNS আবিষ্কার হয় ১৯৮৩ সালে, ১৯৮৩ সালে পল মকাপেট্রিস, জন স্টেলের অনুরোধে ডোমেইন নেম সিস্টেম উদ্ভাবন করেন এবং এর বাস্তবায়ন ঘটান। ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া বার্কলে’র চারজন ছাত্র যথাক্রমে ডগলাস টেরি, মার্ক পেইন্টার, ডেভিড রিগ্‌ল ও সংনিয়ান ঝুও ১৯৮৪ সালে Unix সংস্করণ লেখেন। যা র‌্যালফ ক্যাম্পবেল দেখাশোনা করতেন। ১৯৮৫ সালে কেভিন ডানলপ DNS নতুন করে সংস্কার করেন এবং নাম রাখেন বাইন্ড। এরপর থেকে বাইন্ডের দেখাশোনা করতেন মাইক ক্যারেলস, ফিল আলকুইস্ট ও পল ভিক্সি। এরপর ১৯৯০ সালের শুরুর দিকে Windows NT সংস্করণে বাইন্ড দেয়া হয়। DNS এর ফলেই কোন প্রতিষ্ঠান নেটওয়ার্কের রাউটিং কি রকম হবে সেই ব্যাপারে চিন্তা না করেও ডোমেইন নেম দিতে পারবে।

ডোমেইন নেম নিবন্ধন ইতিহাসঃ

.com TLD ১৫ মার্চ, ১৯৮৫ সালে Symbolics Inc প্রতিষ্ঠানকে symbolics.com এই নামে ডোমেইনটি নিবন্ধন দেয় Computer Systems Firm in Cambridge, Massachusetts। এরপর ১৯৯২ সাল পর্যন্ত মোট ১৫,০০০ ডোমেইন নিবন্ধিত হয়েছিল।

বিভিন্ন স্তরের ডোমেইন এর ধরনঃ

TLD = Top Level Domain: যেমনঃ .com .org .net .info ইত্যাদি। এগুলো হচ্ছে টপ লেভেল ডোমেইন বা প্রথম স্তরের ডোমেইন।

gTLD = Generic Top Level Domain: জেনেরিক শীর্ষ-স্তরের ডোমেইন গুলোর মধ্যে যেগুলো কোন দেশের সাথে সংশ্লিষ্ট না তাদেরকে gTLD বলে। .com, .org, .net, .info ইত্যাদি কিছু সংখ্যক Generic Top Level Domain এর উদাহরন।

ccTLD = Country Code Top Level Domain: একটি দেশের নিজস্ব যেই ডোমেইনগুলো থাকে সেগুলোই হচ্ছে Country Code Top Level Domain । যেমন .com.bd (Bangladesh), .us (America), .uk (United Kingdom), .in (India) ইত্যাদি।

SLD = Sub Level Domain: কোন ডোমেইন এর অধীনস্ত ডোমেইন গুলোকেই Sub Level Domain বলে। যেমনঃ bn.bdclass.com এখানে bn. হচ্ছে Sub Level Domain । একটা Domain এ একাধিক Sub Level Domain থাকতে পারে। যেমনঃ bdclass.com এর সাব ডোমেইন হচ্ছে bn.bdclass.com

Free Domain: যে ডোমেইন গুলো সাধারনত কিনতে হয়না সেগুলোই ফ্রি ডোমেইন। ওয়েব টু করার জন্য ফ্রি ডোমেইন অত্যন্ত জনপ্রিয়। যেমনঃ .blogspot.com .tk, wordpress.com, weebly.com এগুলোতে ফ্রি ডোমেইন নিতে পারবেন। ফ্রি ডোমেইন গুলোর সাথে একটা নির্দিষ্ট পরিমান

ডোমেইন গঠনঃ

ডোমেইন এর ২ টি অংশ থাকে। প্রথম অংশটি নাম থাকবে ইউনিক যা আর কেউ পছন্দ করে নিতে পারবে ২য় অংশটি হচ্ছে ডোমেইন এর এক্সটেনশন। যেমনঃ bdclass.com এখানে bdclass হল ইউনিক ডোমেইন নাম এবং .com হল ডোমেইন এক্সটেনশন। সাধারণত ওয়েবসাইটের ধরণ অনুযায়ী এক্সটেনশন বাছাই করা হয়। এবার আমরা এমন কিছু এক্সটেনশান জেনে নিব।

.com : পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত এক্সটেনশন। কোম্পানি, ই-কমার্স, ব্লগ সহ সকল প্রকার ওয়েবসাইটের জন্য এই এক্সটেনশন খুব জনপ্রিয়।

.net : এক বা একাধিক নেটওয়ার্কের জন্য ব্যবহৃত।

.org : কোন অলাভজনক/ ধর্মীয়/ সংগঠন এর ওয়েবসাইট এর জন্য।

.info : ব্যক্তিগত অথবা তথ্যভিক্তিক ওয়েবসাইটের জন্য ব্যবহৃত।

.me : সাধারণত ব্যক্তিগত পোর্টফলিও ওয়েবসাইটের জন্য ব্যবহার করা হয়।

.edu.bd : স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ইত্যাদি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য এই ডোমেইন।

.ac.bd : বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ব্যবহৃত হয়।

.gov.bd : বাংলাদেশের সরকারি প্রতিষ্ঠানের জন্য।

.mil : মিলিটারি ফোর্স বা সামরিক বাহিনী ব্যবহার করে।

.tv.bd : টেলিভিশন চ্যানেল এর জন্য।

.বাংলা : বাংলা ভাষাভাষী লোকজনদের জন্য।

Domain Name এ সর্বনিম্ন ৩ টি আর সর্বোচ্চ ৬৩ টি অক্ষর বা বর্ণ থাকতে পারবে। শুধুমাত্র ইংরেজি অক্ষর A-Z, 0-9 পর্যন্ত সংখ্যা আর [ – ] (Hyphen) Domain Name এর মধ্যে ব্যাবহার করা যাবে।

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল) .com.bd এবং .বাংলা এক্সটেনশন ডোমেইনটি বিক্রি করে থাকে।

প্রিয় ছাত্র-ছাত্রীরা, আজ এ পর্যন্ত। পরবর্তী লেসনের জন্য ভিজিট করতে থাকুন।

Advertisement

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে