কিভাবে নতুন ভোটাররা অনলাইনে পাবেন জাতীয় পরিচয়পত্রের প্রিন্ট ভার্সন

0
8

আপনি কি ২০১৯ বা ২০২০ এর নতুন ভোটার? আপনি যদি আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্ট কার্ড এখনো না পেয়ে থাকেন, আপনি আপনার কার্ড ঘরে বসেই প্রিন্ট কপি পাবেন। যেটা সাময়িক বা অনলাইন কপি নয় বরং পরিপূর্ণ জাতীয় পরিচয় পত্র

বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে সবাই যেন ঘরে বসেই, অত্যাবশ্যকীয় প্রয়োজনীয় জাতীয় পরিচয়পত্র পেতে পারে, সংশোধনের জন্য আবেদন করতে পারে সে জন্য নতুন সেবা চালু করা হয়েছে।

করোনাভাইরাস সংকটের জন্য, নির্বাচন কমিশন সরাসরি ভোটারদের কাছে এনআইডি কার্ড সরবরাহ করার জন্য সার্ভার আপডেট করেছে। 2 দিন আগে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন যে কোনও ভোটারের এনআইডি কার্ড নম্বর জানতে এসএমএস ও অনলাইন পরিষেবা চালু করেছে।

বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে সবাই যেন ঘরে বসেই, অত্যাবশ্যকীয় প্রয়োজনীয় জাতীয় পরিচয়পত্র পেতে পারে, সংশোধনের জন্য আবেদন করতে পারে সে জন্য এই সেবা চালু করা হয়েছে।

এখানে আমি দেখাব যে আপনি কীভাবে আপনার নতুন জাতীয় আইডি কার্ড নম্বরটি খুঁজে পেতে পারেন এবং সম্পূর্ণ মুদ্রিত সংস্করণ পিডিএফ অনুলিপি ডাউনলোড করতে পারেন। এই অনুলিপিটি কোনও অস্থায়ী আইডি কার্ড বা অনলাইন অনুলিপি নয়, এটি আসল আইডি কার্ড।

আপনি কেবল রঙিন প্রিন্টার দিয়ে প্রিন্ট করে নিলেই হবে। তাহলে আসুন প্রথমে জেনে নেওয়া যাক আপনি কীভাবে আপনার এনআইডি নম্বরটি জানবেন।

SMS ও অনলাইনের মাধ্যমে জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর বের করুন

কীভাবে আপনার জাতীয় পরিচয় নম্বরটি এসএমএস সহ বা অনলাইনে পাবেন তা দেখুন।

এসএমএস সহ এনআইডি নম্বর জানুন

  1. আপনার ভোটার রেজিস্ট্রেশন স্লিপ নং সংগ্রহ করুন (আপনি এনআইডির জন্য নিবন্ধিত হওয়ার সময় পেয়েছিলেন)
  2. নীচের উপায়ে আপনার মোবাইলের সাথে 105 এ এসএমএস করুন

NID Form No DD-MM-YYYY (your date of birth)
which will look like bellow
NID 256485645 12-03-1999
and send to 105

ফিরতি এসএমএসে আপনি আপনার এনআইডি কার্ড নম্বর পাবেন।

অনলাইন থেকে বাংলাদেশ এনআইডি নম্বর সন্ধান করুন

আপনি যদি এসএমএসে অসুবিধা পান তবে আপনি অনলাইনে থেকে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বরটি পেতে পারেন।

১. প্রথমে এই লিঙ্কে ভিজিট করুন NID Website

অনলাইনে জাতীয় পরিচয়পত্র ডাউনলোড

২. উপরের মত একটি ফর্ম পাবেন।  ফর্মটি পূরণ করুন, আপনার ফর্ম নম্বর, আপনার জন্ম তারিখ এবং ক্যাপচা কোড  লিখুন। এবার এনআইডি তথ্য দেখুন  বাটনে ক্লিক করুন। আপনি আপনার জাতীয় আইডি কার্ড বা স্মার্ট কার্ড নম্বর পাবেন। এনআইডি কার্ড নম্বরটি 17 ডিজিটের এবং স্মার্ট কার্ডের নম্বরটি 10 ডিজিটের।

এখন আপনার এনআইডি কার্ড প্রিন্ট সংস্করণ ডাউনলোড করতে হবে।

আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের প্রিন্ট ভার্সন ডাউনলোড করুন

এখন আপনি বাংলাদেশ এনআইডি অ্যাপ্লিকেশন সিস্টেমে রেজিষ্ট্রেশন করতে হবে।

নিচের পদক্ষেপ গুলো অনুসরণ করুন।

১. এখানে ভিজিট করে রেজিষ্ট্রেশন করুন
কিভাবে জাতীয় পরিচয় পত্র ডাউনলোড করবেন

২. আপনার জাতীয় আইডি কার্ড নম্বর লিখুন (আপনি আগের ধাপে যেটি পেয়েছেন), আপনার জন্ম তারিখটি লিখুন এবং ছবির ৫টি নম্বর বা চিঠি লিখুন।

৩. এবার সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন। আপনি নিচের মত একটি পেইজ দেখবেন।

get your national id card from online

এখন আপনার বর্তমান ঠিকানা, বিভাগ, জেলা এবং উপজেলা নির্বাচন করুন। আপনার স্থায়ী ঠিকানাটিও নির্বাচন করুন এবং পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন।

৪. সবকিছু ঠিক থাকলে এখন আপনার মোবাইল ভেরিফাই করতে হবে। আপনি নীচের মত পেইজ দেখতে পাবেন।

how to get bangladesh nid card online

ক্ষেত্রটি ফাঁকা থাকলে আপনার কোনও সচল মোবাইল নম্বর দিতে হবে। আপনি এনআইডি রেজিস্ট্রেশন ফর্মে যে নম্বর দিয়েছেন তা এখানে সেভ  থাকতে পারে। আপনি চাইলে ফোন নম্বর পরিবর্তন করতে পারেন।

আপনার সক্রিয় ফোন নম্বর লিখুন এবং বার্তা পাঠান ক্লিক করুন।

জাতীয় পরিচপত্র ডাউনলোড করুন

৫. আপনি একটি ৬ ডিজিটের কোড পাবেন। এখন কোডটি সঠিকভাবে পরবর্তী পৃষ্ঠায় লিখে বহাল বাটনে ক্লিক করুন।
৬. আপনি যদি এটি সফলভাবে করেন, আপনার নাম দেখবেন এবং আপনাকে আপনার প্রোফাইলের জন্য ১টি পাসওয়ার্ড দিয়ে প্রোফাইল সেইভ করতে হবে। প্রোফাইল সেইভ করলে, আপনি পরবর্তীতে যে কোন সময়, এই পাসওয়ার্ড দিয়ে প্রবেশ করে আবার জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন বা ডাউনলোড করতে পারবেন।

অনলাইন থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রিন্ট কপি

এখানে সেট পাসওয়ার্ড বাটনে ক্লিক করে একটি পাসওয়ার্ড লিখুন। পাসওয়ার্ডটি যেন কমপক্ষে ৮টি letter হয়।

তবে ড্যাশবোর্ডে আপনার ছবি, জাতীয় পরিচয়পত্রের সমস্ত তথ্য দেখতে পাবেন।

এখন ডাউনলোড ক্লিক করুন এবং আপনি সম্পূর্ণরূপে প্রিন্ট সংস্করণ এনআইডি অনুলিপি ডাউনলোড করতে পারেন। কেবল এটি মুদ্রণ করুন এবং সাবধানে স্তরিত করুন। আশা করি এই টিউটোরিয়ালটি আপনাকে অনেক সাহায্য করবে।

আপনি যদি ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করার পর আপনার এনআইডি কার্ডটি না দেখতে পান তবে আপনার কার্ডটি আপনার কাছে বা আপনার স্থানীয় নির্বাচন অফিসে পৌঁছেছে তা নিশ্চিত। তারপরে, আপনি আপনার স্থানীয় নির্বাচন কমিশন অফিসে যোগাযোগ করুন।

দয়া করে, হ্যাঁ বা না দিয়ে একটি মন্তব্য লিখুন, উত্তর দিচ্ছেন এটি আপনার জন্য উপকারী হয়েছে কিনা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে