সোনার তরী কবিতার MCQ (উত্তরসহ)

রবিন্দ্রনাথের সোনার তরী কবিতার MCQ প্রশ্নগুলো উত্তরসহ শেয়ার করা হলো।

সোনার তরী কবিতার MCQ

১. কি কাটতে কাটতে বর্ষা এল?

ক. ধান
খ. আখ
গ. পাট
ঘ. ভুট্টা

ক. ধান

২. ‘সোনার তরী’ কবিতায় কোথায় মেঘ গর্জন করার কথা বলা হয়েছে?

ক. পূর্বাকাশে
খ. পশ্চিমাকাশে
গ. আকাশ জুড়ে
ঘ. হিংস্র হয়ে

গ. আকাশ জুড়ে

৩. ‘সোনার তরী’ কবিতায় মূলত কয়টি চরিত্রের সন্ধান মেলে?

ক. ৫টি
খ. ৩টি
গ. ২টি
ঘ. ৪টি

গ. ২ টি

৪. ‘ভরসা’ শব্দটির অর্থ কী?

ক. আশা
খ. নিরাশা
গ. বিশ্বাস
ঘ. মাঝি

ক. আশা

৫. কূল শব্দের অর্থ কোনটি?

ক. ঢেউ
খ. কিনারা
গ. বংশ
ঘ. স্রোত

খ. কিনারা

৬. কী কাটা হল সারা?

ক. পাট
খ. ধান
গ. ঘাস
ঘ. আখ

খ. ধান

৭. ‘সোনার তরী’ কবিতায় কূলে একা কে বসে আছে?

ক. কৃষক
খ. শ্রমিক
গ. জমিদার
ঘ. ভিক্ষুক

ক. কৃষক

৮. ‘থরে বিথরে’ শব্দটির অর্থ কী?

ক. ব্যবচ্ছেদ করে
খ. সুবিন্যস্ত করে
গ. এলোমেলো করে
ঘ. বিচ্ছিন্ন করে

খ. সুবিন্যস্ত করে

৯. সোনার ধান নিয়ে তরী কোথায় চলে যায়?

ক. নদীতে
খ. সাগরে
গ. মোহনায়
ঘ. অজানা দেশে

ঘ. অজানা দেশে

১০. ‘ক্ষুরধারা’ বলতে কী বুঝানো হয়েছে?

ক. তীব্র ভ্রকুটি
খ. ক্ষুর দ্বারা কোনো কিছু কাটা
গ. ক্ষুরের মতো ধারালো প্রবাহ বা স্রোত
ঘ. নদীর যে বাঁকটি ক্ষুরের মতো

গ. ক্ষুরের মতো ধারালো প্রবাহ বা স্রোত

১১. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছদ্মনাম কী?

ক. বীরবল
খ. যাযাবর
গ. জগৎশেঠ
ঘ. ভানুসিংহ

ঘ. ভানুসিংহ

১২. ‘তরুছায়ামসী-মাখা’ বলতে কী বুঝানো হয়েছে?

ক. গাছপালার ছায়ায় কালচে রং মাখা
খ. গাছ হতে প্রস্তুতকৃত কলমের কালি
গ. গাছগুলোতে মেঘের যে ছায়া পড়েছে
ঘ. নদীতীরের অনিদ্য সুন্দর বৃক্ষরাজি

ক. গাছপালার ছায়ায় কালচে রং মাখা

১৩. ‘সোনার তরী’ কবিতায় ‘শূন্য নদীর তীরে’ কে একা পড়ে থাকল?

ক. কৃষক
খ. মাঝি
গ. তরী
ঘ. ছোট খেত

ক. কৃষক

১৪. কোন পঙক্তিতে মাঝির অপরিচয়ের নির্বিকারত্ব ও নিরাসক্তি ফুটে উঠেছে?

ক. ভরা পালে চলে যায়
খ. কোনো দিকে নাহি চায়
গ. দেখে যেন মনে হয় চিনি উহারে
ঘ. গান গেয়ে তরী বেয়ে কে আসে পারে

খ. কোনো দিকে নাহি চায়

১৫. সোনার তরীতে কেন কৃষকের ঠাঁই হলো না?

ক. তরীটা ছিল অত্যন্ত ছোট
খ. মাঝিটি ছিল খুব নিষ্ঠুর
গ. কৃষকের সোনার ধানে তরীটি ভরে গিয়েছিল
ঘ. সোনার তরীতে স্থান করে নেয়ার ব্যাপারে কৃষক উদাসীন ছিল

গ. কৃষকের সোনার ধানে তরীটি ভরে গিয়েছিল

১৬. মানবজীবনের এক দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতির প্রতি ইঙ্গিত দেয়া হয়েছে কোন শব্দটি ব্যবহারের মাধ্যমে?

ক. ক্ষুরধারা
খ. খরপরশা
গ. মেঘ
ঘ. কূল

ক. ক্ষুরধারা

১৭. কৃষক কিংবা কবির নি:সঙ্গ অবস্থা প্রকাশ পাচ্ছে কোনটির মাধ্যমে?

ক. আমি
খ. আমি একেলা
গ. খরপরা
ঘ. থরে বিথরে

খ. আমি একেলা

১৮. মাঝি মূলত তরী ভিড়ালো কেন?

ক. ফসলের জন্য
খ. কবির জন্য
গ. বৃষ্টি নামানোর জন্য
ঘ. স্রোতের জন্য

ক. ফসলের জন্য

১৯. ‘সোনার তরী’ কবিতাটির নামকরণ ‘নিষ্ঠুর মহাকাল’ রাখা যেত নিচের কোন যুক্তিতে?

ক. চরিত্রের ভিত্তিতে
খ. বিষয়ের ভিত্তিতে
গ. অন্তর্নিহিত তাৎপর্যের ভিত্তিতে
ঘ. দার্শনিকতার ভিত্তিতে

ঘ. দার্শনিকতার ভিত্তিতে

২০. কৃষক সোনার ফসল মহাকালের উদ্দেশ্যে পাঠাতে চায় –

ক. কর্মের মধ্যে বেঁচে থাকার জন্য
খ. মহাকালের শূন্যতায় বিলীন হওয়ার জন্য
গ. মাঝিকে ভালো লাগার জন্য
ঘ. ইহকালে শান্তিতে বসবাসের জন্য

ক. কর্মের মধ্যে বেঁচে থাকার জন্য

২১. নির্বিকার মাঝিকে দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য কৃষক চেষ্টা করেছেন –

ক. তার সাথে পরিচয় পাওয়ার জন্য
খ. তাকে নিয়ে যাওয়ার জন্য
গ. তার সোনার ফসল তুলে নেয়ার জন্য
ঘ. তাকে নদী পার করার জন্য

গ. তার সোনার ফসল তুলে নেয়ার জন্য

২২. ‘ভারা ভারা’ শব্দটি কী অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে?

ক. সারি সারি
খ. রাশি রাশি
গ. স্তরে স্তরে
ঘ. বোঝা বোঝা

খ. রাশি রাশি

২৩. ‘সোনার তরী’ কবিতায় ‘সোনার ধান’ আসলে কী?

ক. সোনার তরী
খ. মানুষের সৃষ্টিকর্ম
গ. মূল্যবান সম্পদ
ঘ. মহাকালের প্রতীক

খ. মানুষের সৃষ্টিকর্ম

২৪. কোন সময়ে ক্ষেতসমেত নদীর তীর নদীর গ্রাসে হারিয়ে যায়?

ক. আষাঢ়-শ্রাবণ মাসে
খ. আশ্বিন-কার্তিক মাসে
গ. বৈশাখ-জৈষ্ঠ্য মাসে
ঘ. কার্তিক-অগ্রহায়ণ মাসে

ক. আষাঢ়-শ্রাবণ মাসে

২৫. ফকির লালন শাহ অনেক পূর্বে মৃত্যুবরণ করেছেন কিন্তু তাঁর গানগুলো যুগ যুগ ধরে আজও মানুষের কণ্ঠে ধ্বনিত হয়ে চলেছে। এ বিষয়টি তোমার পঠিত কোন কবিতাকে সমর্থন করে?

ক. জীবন বন্দনা
খ. তাহারেই পড়ে মনে
গ. পাঞ্জেরী
ঘ. সোনার তরী

ঘ. সোনার তরী

২৬. ‘বাঁকা জল’ কিসের প্রতীক?

ক. ধাবমান জলের
খ. কালস্রোতের
গ. কালো জলের
ঘ. ভরা জলের

খ. কালস্রোতের

২৭. ‘দৃষ্টি’ শব্দটি ব্যাকরণের কোন নিয়মে সম্পন্ন হয়েছে?

ক. প্রকৃতি প্রত্যয়
খ. সমাস
গ. উপসর্গ
ঘ. অনুসর্গ

ক. প্রকৃতি প্রত্যয়

২৮. মানুষের জীবন কেমন?

ক. দীর্ঘস্থায়ী
খ. চিরস্থায়ী
গ. ক্ষণস্থায়ী
ঘ. অমর

গ. ক্ষণস্থায়ী

২৯. ‘নদী’ শব্দটির প্রতিশব্দ হিসেবে কোনটি সমর্থনযোগ্য?

ক. নেত্র
খ. সলিল
গ. সৈকত
ঘ. তটিনী

ঘ. তটিনী

৩০. ‘সোনার তরী’ কবিতার সর্বশেষ স্তবকের ‘শূন্য’ শব্দটির প্রয়োগে কী স্পষ্ট হয়ে ওঠে?

ক. এটি অক্ষরবৃত্ত ছন্দে রচিত
খ. এটি মাত্রাবৃত্ত ছন্দে রচিত
গ. এটি সুনির্দিষ্ট ছন্দহীন কবিতা
ঘ. এটি একটি গভীর চতুর্দশপদী কবিতা

গ. এটি সুনির্দিষ্ট ছন্দহীন কবিতা

৩১. ফসল উৎপাদনকারী কৃষক বলতে কবি কাকে কল্পনা করেছেন?

ক. নিজেকে
খ. মাঝিকে
গ. নেতাকে
ঘ. তরুণকে

খ. মাঝিকে

৩২. ‘সোনার তরী’ কবিতায় কবি সৃষ্টিকর্মকে কী হিসেবে কল্পনা করা হয়েছে?

ক. ধান-সম্পদ
খ. জমিজমা
গ. ফসল
ঘ. তরী

গ. ফসল

৩৩. ‘সোনার তরী’র মাঝি অতৃপ্তির বেদনা নিয়ে কিসের জন্য অপেক্ষা করতে থাকে?

ক. আবার মাঝি আসবে বলে
খ. মহাকালের শূন্যতায় বিলীন হওয়ার জন্য
গ. মহাকাল তাকে একদিন গ্রহণ করবে বলে
ঘ. বৃষ্টি আসলে আবার সোনার ফসল ফলাবে বলে

খ. মহাকালের শূন্যতায় বিলীন হওয়ার জন্য

৩৩. মহাকাল ব্যক্তিমানুষকে গ্রহণ করে না কেন?

১. ব্যক্তিমানুষ তার ভাবনার বাইরে
২. ব্যক্তিমানুষ দিয়ে কোন কিছু বিচার করা হয় না
৩. কর্মই মানুষের বিচারের আসল মানদন্ড

কোনটি সঠিক

ক. ১, ২
খ. ২, ৩
গ. ৩
ঘ. ১, ২, ও ৩

গ. ৩